মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৮ কার্তিক ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম (পরীক্ষামুলক স¤প্রচার)

বাঘিনীরা আসছে স্কটল্যান্ডে: টি-২০ মহিলা বিশ্ব কাপ বাছাই পর্ব শুরু ৩১ অগাষ্ট




বাংলা স্কট স্পোর্টস ডেস্ক : (২৪ অগাষ্ট ২০১৯)

আগামী ৩১ শে আগষ্ট স্কটল্যান্ডে শুরু হচ্ছে আইসিসি টি-২০ মহিলা বিশ্ব কাপের বাছাই পর্ব । এতে যোগ দিচ্ছে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। এ নিয়ে স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটিতে চলছে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দিপনা । সবগুলো ম্যাচ জনসাধারনের জন্য ফ্রিতে দেখার সুযোগ থাকছে। এছাড়া প্রথমবারের মত আইসিসি সবগুলি ম্যাচ লাইভ স্ট্রিমিং করার ও উদ্যোগ নিয়েছ।

আগামী ৩১ আগষ্ট – ৭ সেপ্টেম্বর স্কটল্যান্ডের ডান্ডি এবং এঙ্গাস কাউন্সিলের অন্তর্গত ফরফার এবং আরব্রথ ক্রিকেট ক্লাবে অনুষ্টিত হচ্ছে সবগুলি ম্যাচ । প্রতিটি ম্যাচ সম্পন্ন হতে সর্বোচ্চ সময় লাগবে প্রায় ৩ ঘণ্টা । প্রতিদিন দুইটি করে ম্যাচ অনুষ্টিত হবে; সকাল ১০ টা এবং বিকাল ২ টায় । এছাড়া টুর্ণামেন্ট চলাকালিন দলের খেলোয়াড় স্ট্র্যাথমোর ক্রিকেট ক্লাবে অনুশীলন করবেন বলে জানা গেছে।

স্বাগতিক স্কটল্যান্ড ছাড়াও যোগ দিচ্ছে বাংলাদেশ সহ মোট ৮টি দেশ । বাছাই পর্বের টুর্ণামেন্ট থেকে ২ টি দল খেলার সুযোগ পাবে মহিলা টি-২০ ওয়ার্ল্ড কাপে। ৩১ আগষ্ট থেকে শুরু হয়ে খেলা চলবে ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

কোয়ালিফায়িং টুর্ণামেন্টে বাংলাদেশ রয়েছে এ গ্রুপে । দুটি গ্রুপে বিভক্ত অন্যান্য দেশগুলি হচ্ছে –
গ্রুপ এ: বাংলাদেশ, স্কটল্যান্ড, পাপুয়া নিউ গিনি এবং ইউএসএ
গ্রুপ বি: আয়ারল্যান্ড, থাইল্যান্ড, নামিবিয়া, এবং নেদারল্যান্ড
নক আউট পদ্ধতির খেলায় প্রত্যেক গ্রূপ থেকে ১ টি করে মোট দুইটি বিজয়ী দল আগামী ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০ সালে অষ্ট্রেলিয়ায় অনুস্টিত টি-২০ ওমেন বিশ^কাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে । যে সব দেশ ইতিমধ্যে টি-২০ উইমেন বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে সেগুলি হচ্ছে – অস্ট্রেলিয়া, ইন্ডিয়া, নিউজিল্যান্ড, শ্রীলংকা, ইংল্যান্ড, সাউথ আফ্রিকা, ওয়েষ্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তান।

বাংলাদেশ দলে যারা রয়েছেন

সালমা খাতুন (অধিনায়ক) , মুর্শিদা খাতুন, জাহানারা আলম, নাদিয়া আক্তার, ফারজানা হক, সানজিদা ইসলাম, সোবহানা মোশতারী, রিতু মনি, খাদিজা তুল কোবরা, আয়েশা রহমান, ফাহিমা খাতুন, শায়লা শারমিন, নিগার সুলতানা এবং শামিমা সুলতানা (উইকেট কিপার)

বাংলাদেশে মহিলা ক্রিকেট দল: অপার সম্ভাবনা

বাংলাদেশে ক্রিকেটের ব্যাপক অগ্রগতি হলেও মহিলাদের ক্রিকেটে অংশগ্রহন তেমন উল্লেখযোগ্য নয়। ২০০৭ সালে সর্বপ্রথম গঠিত হয় মহিলা ক্রিকেট দল। একই বছর মহিলা দল থাইল্যান্ডের সাথে খেলায় নেমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পদার্পন করে। ২০১১ সালে মহিলা ক্রিকেট দল যখন ওডিআই স্ট্যাটাস অর্জন করে তখন কোয়ালিফায়িং টুর্ণামেন্টে ৫ স্থানে অবস্থান করছিল। ভারতের মত শক্তিশালি দলকে হারিয়ে ২০১৮ সালে এশিয়া কাপের চ্যাম্পিয়ন ট্রফি ছিনিয়ে এনেছে বাঘিনীরা। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সালমা খাতুনের রয়েছে ২০১৪ সালের টি-২০ বিশ্ব কাপে নাম্বার ওয়ান অলরাউন্ডার হওয়ার তকমা। খুলনার মেয়ে সালমা আগামী টি-২০ বিশ্ব কাপের ব্যাপারে বেশ আত্ব বিশ্বাসী । অন্যদিকে টিমের জন্য সবচেয়ে খারাপ খবর হল, ইনজুরি সমস্যার কারনে দলের নির্ভরযোগ্য প্লেয়ার আলরাউন্ডার রুমানা আহমদ বাদ পড়েছেন। এ খবরটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের উইমেন উইং এর ম্যানেজার নাজমুল আবেদিন। রুমানা হচ্ছেন মহিলা টি-২০ তে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান আর্জনকারী এবং উইকেট ধারী প্লেয়ার। ২০১৮ সালে আইসিসি টি-২০ মহিলাদের মধ্যে একজন সেরা খেলোয়াড়। অধিনায়ক সালমা মনে করেন রুমানার অভাব অপুরণীয় তবুুও তারা তাদের টিম স্পিরিটকে কাজে লাগিয়ে এর ধাক্কা অনেকটা কাঠিয়ে উঠতে সক্ষম হবেন।

সালমা খাতুন (অধিনায়ক)

সালমা মনে করেন বাংলাদেশে মহিলাদের ক্রিকেটে উন্নয়নের জন্য যথাযথ অবকাঠামো গড়ে তোলা প্রয়োজন, যেমন অনুর্দ্ধ -১৯ এবং এ টিম চালু করা প্রয়োজন। এর মাধ্যামে মেধাবী খেলোয়াড় তৈরী হতে পারে।
মহিলাদের ক্রিকেট বাংলাদেশে এখন ও পেশাদারী মর্যাদা পায়নি, খেলোয়াড়দের প্রণোদনা, বেতন -ভাতা ইত্যাদি পুরুষদের তুলনায় যৎসামান্য । মহিলাদের জন্য নেই কোন আলাদা প্রশিক্ষণ ব্যাবস্থাপনা।
বিসিবি সুত্রে জানা গেছে, স্কটল্যান্ডের টুর্ণামেন্টকে সামনে রেখে দল কঠোর অনুশীলনে ব্যাস্ত। মিরপুর ক্রিকেট একাডেমী চলছে প্রশিক্ষন। গত কুরবানী ঈদে ও দলের সদস্যদের ছুটি দেয়া হয়নি। সম্প্রতি বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল প্রিটোরিয়ায় স্বাগতিক সাউথ আফ্রিকাকে হারিয়ে ফিরে পেয়েছে তাদের আত্ববিশ্বাস ।

স্কটল্যান্ডের ক্রিকেটপ্রেমী দর্শকদের ভাবনা:

বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দলের স্কটল্যান্ড সফরকে সামনে রেখে স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটিতে দেখা দিয়েছে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দিপনা । দলকে সমর্থন ও উৎসাহ যোগাতে খেলার মাঠে উপস্থিত হওয়ার জন্য চলছে নানা প্রস্তুতি। থিছল শাপলা কালচ্যারাল গ্রুপের চেয়ার ফখরুল ইসলাম জানালেন, বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল স্কটল্যান্ডে এসে এই কোয়ালিফাইয়িং ম্যাচে অংশগ্রহন করছে এটা আমাদের জন্য সত্যি একটি আনন্দের ব্যাপার। ঐতিহাসিক এই ম্যাচে আমরা সবাই উপস্থিত থেকে দেশের মেয়েদের উৎসাহ দেয়া আমাদের দায়িত্ব। আমরা এডিনবরা থেকে বাসযোগে সদলবলে খেলা দেখতে যাওয়ার পরিকল্পনা করছি। এডিনবরা থেকে কেউ আমাদের সাথে যেতে চাইলে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

ক্রিকেট স্কটল্যান্ডের অনুভুতি:

ক্রিকেট স্কটল্যান্ডের সিইও ম্যালকম ক্যানন বলেন: “ডান্ডি ও অ্যাঙ্গাস এলাকায় এই আর্ন্তজাতিক ক্রিটেট ম্যাচটি নিয়ে আসতে পারায় ক্রিটেট স্কটল্যান্ড গর্বিত । এই ঐতিহাসিক টুর্ণামেন্টটি আয়োজন করতে গিয়ে ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব ও আরব্রথ ইউনাইটেড ক্রিকেট ক্লাবের সাথে যৌথভাবে কাজ করতে পেরে আমরা গর্বিত”
“এই টুর্ণামেন্টে উন্নতমানের খেলাধুলার সাথে মহিলারা জড়িত হচ্ছেন, এতে অনেক ক্রিকেট ভক্ত খেলা উপভোগ করতে পারবেন এবং এর ফলে এখানকার মেয়েরা ক্রিকেটের সাথে আরও বেশী সম্পৃক্ত হতে উদ্বুদ্ধ হবে বলে আমি নিশ্চিত ” উল্লেখ্য, উক্ত টুর্ণামেন্টের খেলাগুলি দর্শকদের জন্য থাকবে উন্মুক্ত। খেলা দেখতে কোন টিকেট লাগবে না ।

আইসিসি লাইভ স্টিমিং:

প্রথমবারের মত আইসিসি মহিলা টি-২০ কোয়ালিফাইয়িং টুর্ণামেন্টের সবগুলি ম্যাচগুলি অনলাইনে লাইভ স্ট্রিমিং করবে বলে জানা গেছে। মহিলাদের ক্রিকেট খেলা বিশ^ব্যাপী সম্প্রসারনের লক্ষ্যে আইসিসি এমন উদ্যোগ হাতে নিয়েছে। লাইভ ব্রডকাস্ট আকর্ষনীয় করতে মাঠে থাকবে ৬ টি ক্যামেরা । খেলার ভিডিও এবং নানা তথ্য আইসিসি র ওয়েবসাইট, ব্লগ ও সোশ্যাল মিডিয়া র মাধ্যামে বিশে^র লক্ষাধিক ক্রিকেটপ্রেমী উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়া ম্যাচের ধারাভাষ্য, লাইভ স্কোর ও আপডেট সমুহ আইসিসি র ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

আইসিসি টি-২০ মহিলা কোয়ালিফায়িং টুর্ণামেন্টের ফিক্সচার:

ওয়ার্ম আপ ম্যাচ: ২৯ আগষ্ট ২০১৯:
বাংলাদেশ বনাম নেদারল্যান্ড, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, সকাল ১০.০০

টুর্ণামেন্টের মুল ম্যাচ সমুহ:

৩১ আগষ্ট ২০১৯:
– বাংলাদেশ বনাম পাপুয়া নিউ গিনি, ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– থাইল্যান্ড বনাম নেদারল্যান্ড, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– স্কটল্যান্ড বনাম ইউএসএ, ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, অপরাহ্ন ২ ঘটিকা
– নামিবিয়া বনাম আয়ারল্যান্ড, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, অপরাহ্ন ২ ঘটিকা

০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯:
– থাইল্যান্ড বনাম নামিবিয়া, ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– স্কটল্যান্ড বনাম পাপুয়া নিউ গিনি, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– আয়ারল্যান্ড বনাম নেদারল্যান্ড, ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, বেলা ২ ঘটিকা
– ইউএসএ বনাম বাংলাদেশ, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, বেলা ২ ঘটিকা

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯:
– আয়ারল্যান্ড বনাম থাইল্যান্ড, ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– নেদারল্যান্ড বনাম নামিবিয়া, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– স্কটল্যান্ড বনাম বাংলাদেশ, ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, বেলা ২ ঘটিকা
– পাপুয়া নিউ গিনি বনাম ইউএসএ, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, বেলা ২ ঘটিকা

০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯:
– গ্রুপ এ- ১ বনাম গ্রুপ বি-২, ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– গ্রুপ বি- ৩ বনাম গ্রুপ বি-৩, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– গ্রুপ বি- ১ বনাম গ্রুপ এ-২, ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, ২ ঘটিকা
– গ্রুপ এ-৩ বনাম গ্রুপ বি- ৪, আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, বেলা ২ ঘটিকা

০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯:
– ১ম সেমি ফাইন্যাল (৩য় ও ৪র্থ স্থান): ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– ২য় সেমি ফাইন্যাল ( ৭ম ও ৮ম স্থান): আরব্রথ স্পোর্টস ক্লাব, সকাল ১০ ঘটিকা
– ফাইন্যাল: ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব, বেলা ২ ঘটিকা

খেলার মাঠ: কোথায় ও কিভাবে যাবেন ?

ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব: নর্থ অব স্কটল্যান্ডগামী যে কোন ট্রেনে ব্রাউটি ফেরী নামক স্টেশনে নামতে হবে। স্টেশন থেকে খেলার মাঠের দুরত্ব ১ মাইলের মত হবে। পায়ে হেঠে ১০-১৪ মিনিট লাগতে পারে। স্থানীয় ভাবে এর নাম ফোর্টহিল কমিউনিটি স্পোটিং ক্লাব। গুগল ম্যাপে ঠিকানাটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Forthill Community Sports Club,
Fintry Place, Broughty Ferry,
Dundee DD5 3BE

আরব্রথ ক্রিকেট ক্লাব: আবারডিন বা নর্থ অব স্কটল্যান্ড ট্রেন রুটের একটি ষ্টেশন হচ্ছে আরব্রথ। স্কটরেলের অধিকাংশ সার্ভিস এই স্টেশনে থামে। এডিনবরা অথবা হেমার্কেট থেকে প্রতি ঘণ্টায় ট্রেন পাওয়া যাবে। আরব্রথ ট্রেন স্টেশন থেকে খেলার মাঠ প্রায় ১ মাইল দুরে । শহরের কেন্দ্রভাবে মাঠটি অবস্থিত। স্থানীয় ভাবে এলাকাটিকে বলে লখল্যান্ড। গুগল ম্যাপে ঠিকানাটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন। ঠিকানা ও পোষ্ট কোড নিচে দেয়া হল

Arbroath United Cricket Club
Arbroath, Angus, DD11 3EF

উল্লেখ্য, উভয় মাঠেই দর্শকদের জন্য বসে খেলা দেখার কোন উন্নতমানের ছাউনিযুক্ত গ্যাল্যারী নেই । আয়োজকরা হয়তোবা অস্থায়ী কোন ব্যাবস্থা করতে পারে। কিন্তুু তার কোন নিশ্চয়তা নেই। সবাইকে নিজ দায়িত্বে ছাতা, ওয়াটার প্রুফ কাপড়, ঘাসে বসার জন্য ম্যাট/ পলিথিন সাথে নিয়ে যেতে পরামর্শ দেয়া যাচ্ছে।

বিস্তারিত তথ্যের জন্য ভিজিট করুন:
আইসিসি (ইন্টারন্যাশন্যাল ক্রিকেট কাউন্সিল) : www.icc-cricket.com
ক্রিকেট স্কটল্যান্ড: www.cricketscotland.com
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড: www.tigercricket.com.bd
ফরফারশায়ার ক্রিকেট ক্লাব: www.forfarshire.co.uk
আরব্রথ ক্রিকেট ক্লাব: www.pitchero.com

সম্পাদক: মিজান রহমান
প্রকাশক: বিএসএন মিডিয়া, এডিনবরা, স্কটল্যাণ্ড থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: