সোমবার, ২৫ মে ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আমাদের ওয়েবসাইটে স্বাগতম (পরীক্ষামুলক স¤প্রচার)

স্কটল্যান্ডে করোনা ভাইরাস (বিস্তারিত)

মোহাম্মদ ইকবালের (নিক্সন) জানাযা ও দাফন অনুষ্টিত হচ্ছে সোমবার




বাংলা স্কট নিউজ (০২ মে ২০২০)

মোহাম্মদ ইকবাল ওরফে নিক্সনের জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে আগামী সোমবার ৪ মে ২০২০। এডিনবরাস্থ ক্রেইগমিলার পার্ক সিমেট্রিতে (ডালকিথ রোড) মৃতদেহ দাফন করা হবে। শুধুমাত্র নির্দিষ্ট সংখ্যক কিছু পরিবারের সদস্য কিংবা বন্ধু বান্ধবরা এতে যোগ দিতে পারবেন। এক্ষেত্রে সর্বোচ্ছ সংখ্যা ১০ জন।

মরহুমের দুই বাল্যবন্ধু এডিনবরার বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী ও কমিউনিটি ব্যাক্তিত্ব মো: দেলওয়ার ও সেলিম হায়দারের পক্ষ থেকে যে মেসেজটি দেয়া হয়েছে তা এখানে হুবহু তুলে ধরা হল:

‘‘অত্যন্ত দুখের সাথে জানাচ্ছি যে, আমাদের বাল্যবন্ধু নিক্সন সম্প্রতি মৃত্যুবরন করেছেন। ( ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন)। সে ডায়বেটিক সহ অন্যন্য রোগে ভুগছিল। ডাক্তারি পরিক্ষায় স্বাভাবিক মৃত্যুর আলামত পাওয়া গেছে বলে আমরা শুনেছি ”

“আমরা অত্যান্ত দু:খের সাথে জানাচ্ছি যে, সোশ্যাল দুরত্ব সংক্রান্ত সরকারী নীতিমালার কারনে, আমরা কাউকে জানাযায় কিংবা দাফনে যোগ দেয়ার জন্য বলতে পারছি না। ”

‘‘দয়া করে আপনারা যার যার বাসায় থেকে নিক্সনের রুহের মাগফেরাতের জন্য দোয়া করবেন । ”

‘‘যে কোন তথ্যের জন্য আমাদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করুন- মো: দেলওয়ার – ০৭৮৩০ ৪৫২২১২ , সেলিম হায়দার – ০৭৭৩৬ ৫৫০৩১৩”


(বি:দ্র: জানাযার ফেইসবুক লাইভের লিংক সোমবার অপরাহ্নে বাংলা স্কট নিউজের ফেইসবুক পেইজে শেয়ার করা হবে। ইউ কে সময় বেলা ২.০০ -২.৩০ জিএমটি ) : https://www.facebook.com/BanglaScot

উল্লেখ্য, মরহুম ইকবাল দীর্ঘদিন যাবত এডিনবরায় বসবাস করে আসছিলেন। তার ঘনিষ্ট পারিবারিক সুত্র জানায়, শহরের ফাউন্টেনব্রীজ এলাকায় তিনি একটি ফ্লাটে একাকী বসবাস করতেন । কয়েক দিন যাবত তার সাথে মোবাইলে কোন যোগাযোগ করতে পারছিলেন না কেউ। তার খোঁজ নিতে সোমবার ২৭ এপ্রিল ২০২০ তারিখ বিকেলে তার বাসায় যান তার ঘনিষ্ট বন্ধু মো: দেলওয়ার, তখন ভিতর থেকে কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে তারা ঘরের ভেতরে ঢুকেন। এ সময় ইকবালের মৃতদেহ ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখা যায়।

মরহুম ইকবালের দেশের বাড়ী চট্টগ্রামের পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটি সদরের রিজার্ভ বাজার এলাকায়। রাঙ্গামাটিতে থাকাকালীন তিনি স্থানীয়ভাবে রাজনৈতিক, সাহিত্য, ক্রীড়া ও সাস্কৃতিক কার্যক্রমের সাথে যুক্ত ছিলেন।
মৃত্যুকালে পিতা, ৩ মেয়ে, স্ত্রী, আত্বীয় স্বজন এবং অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। পরিবারের সকল সদস্যরা বর্তমানে বাংলাদেশে অবস্থান করছেন।

মৃত্যুর কারন শীর্ষক এমসিসিডি রিপোর্ট টি এই রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত বাংলা স্কট নিউজের হাতে এসে পৌছায়নি।
গত ২৮ শে এপ্রিল বাংলাস্কট নিউজে ‘এডিনবরায় বাংলাদেশী প্রবাসীর মৃতদেহ উদ্ধার‘ শীর্ষক একটি প্রতিবেদক প্রকাশিত হয়েছিল।

Visits: 12

সম্পাদক: মিজান রহমান
প্রকাশক: বিএসএন মিডিয়া, এডিনবরা, স্কটল্যাণ্ড থেকে প্রচারিত

সার্চ/খুঁজুন: